মা দুর্গার হাতের নয়টি অস্ত্রের মাহাত্ম্য

মা দুর্গার হাতের নয়টি অস্ত্রের মাহাত্ম্য

81-Z4glRAeL._SL1500_
# শঙ্খ :- পুরাণ মতে, শঙ্খের থেকে যে শব্দের উৎপত্তি হয় তার থেকেই জীব জগতের সমস্ত প্রাণের সৃষ্টি। সৃষ্টির প্রতীক এই শঙ্খ।


# চক্র :- মা দুর্গার হাতে ঘোরে চক্র। এর অর্থ হল সমস্ত সৃষ্টির কেন্দ্রে রয়েছেন দেবী দুর্গা। এবং তাঁকে কেন্দ্র করে সমস্ত বিশ্ব আবর্তিত হচ্ছে।


# পদ্ম :- দেবীর হাতের পদ্ম সমাজকে অসাধারণ একটি বার্তা দেয়। পাঁকের মধ্যে জন্মায় পদ্ম। কিন্তু তবু সে কত সুন্দর। তেমনই মায়ের আশীর্বাদে যেন অসুরকূলও তাঁর ভিতরের অন্ধকার থেকে যে মুক্ত হয়, এই বার্তাই দেয় পদ্ম ফুল।


# তলোয়ার :- তলোয়ারের ধার যেন আসলে মানুষের বুদ্ধির ধার। এই ধার দিয়ে যেন সমাজের সমস্ত বৈষম্য এবং নেগিটিভিটিকে মানুষ জয় করতে পারে, সেই বার্তাই বহন করে দেবীর হাতের খোলা তলোয়ার।


# তীর-ধনুক:- শক্তির চিহ্ন এই তীর-ধনুক। তীর পোটেনশিয়াল এনার্জির চিহ্ন। আর ধনুক কাইনেটিক এনার্জির চিহ্ন।


# ত্রিশূল :- ত্রিশূলের তিনটি তীক্ষ্ণ ফলার তিনটি আলাদা আলাদা অর্থ রয়েছে। মানুষ তিনটি গুণ বা ত্রিগুণার সমন্বয়ে তৈরি। তম:, রজ: অর্থাৎ এবং সত্য। ত্রিশূলের তিনটি ফলা এই তিনটি গুণকেই নির্দেশ করে।


# দণ্ড বা গদা:- দণ্ড আনুগত্য, ভালবাসা এবং ভক্তির প্রতীক।


# অশনি :- মায়ের হাতের অশনি দৃঢ়তা এবং সংহতির প্রতীক। এই দু’টি গুণেই মানুষ জীবনে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হন।


# সাপ:- চেতনার নিম্ন স্তরে থেকে উচ্চ স্তরে প্রবেশ এবং বিশুদ্ধ চেতনার চিহ্ন এই সাপ।
নমঃ জয় মা দুর্গা

 

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন

মন্তব্য করুন

সাবমিট

© বাংলাদেশ সনাতনী সেবক সংঘ | সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত

Powered by Smart Technology